মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১২০তম

মোবাইল ইন্টারনেটের গতিতে গত চার মাসে বাংলাদেশের অবস্থানের তেমন কোনো পরিবর্তন হয়নি। কিন্তু কমেছে ডাউনলোড স্পিড। চলতি বছরের জুলাইয়ে বিশ্বে মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশ ছিল ১২০তম। চার মাস পরে একই জায়গায় অবস্থান করলেও এবার ডাউনলোড গতি কমে দাঁড়িয়েছে প্রতি সেকেন্ডে ৪ দশমিক ৯৭ মেগাবাইট। এর আগে এই গতি ছিল ৫ দশমিক ১৭ মেগাবাইট।

সেকেন্ডে ৬২ দশমিক ৬৬ মেগাবাইল ডাউনলোড গতি নিয়ে মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে প্রথম স্থানে এবারও রয়েছে নরওয়ে। আর ব্রডব্যান্ডে প্রথম অবস্থানে রয়েছে সিঙ্গাপুর। সে দেশে গড় ডাউনলোড গতি প্রতি সেকেন্ডে ১৫৩ দশমিক ৮৫ মেগাবাইট।মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে আক্ষরিক অর্থে কিছুটা পিছিয়ে গেলেও ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট গতিতে বেশ কয়েক ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশের এখন অবস্থান ৮৫তম। যেখানে প্রতি সেকেন্ডে গড় ১৬ দশমিক ১৪ মেগাবাইট ডাউনলোড গতি নিয়ে গত চার মাসে ১৪৪তম অবস্থান থেকে এই অবস্থানে এসেছে।

গত জুলাইয়ের হিসাবে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের গড় ডাউনলোড গতি ছিল মাত্র ১ দশমিক ৩৪ মেগাবাইট।ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট গতি পরীক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘ওকলা’ তাদের ডাটা পরীক্ষা থেকে এমনটাই জানিয়েছে। এসব ডাটা সর্বশেষ নেওয়া হয়েছে নভেম্বর মাসে।ইন্টারনেট গতি পরীক্ষার জনপ্রিয় অ্যাপ স্পিডটেস্ট ডটনেট তৈরির পেছনে রয়েছে ওকলা। এই অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহক যেকোনো সময় তার ইন্টারনেটের গতি পরীক্ষা করে দেখতে পারেন।

স্পিডটেস্ট ডটনেটে মোট ১২২টি দেশের মোবাইল ইন্টারনেট গতি তুলে ধরা হয়েছে। যেখানে বাংলাদেশের পরে রয়েছে লিবিয়া এবং ইরাক। তাদের ডাউনলোড গতি যথাক্রমে চার দশমিক ০৮ এবং তিন দশমিক ১২ মেগাবাইট। পাশের দেশ ভারতের অবস্থান ১০৯তম।এছাড়াও মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে নেদারল্যান্ড ও আইসল্যান্ড। আর ব্রডব্যান্ডে আইসল্যান্ড ও হংকং যথাক্রমে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

ঢাকা আবহাওয়া
০১ জানুয়ারি, ১৯৭০
ফজর
জোহর
আসর
মাগরিব
ইশা
সূর্যাস্ত : ৬:০৬সূর্যোদয় : ৫:৪৪

আর্কাইভ